যে কোন যৌন বা স্বাস্থ্য সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ডা.মনিরুজ্জামান এম.ডি স্যার। কল করুন- 01707-330660

nari nirzatonলালমনিরহাটের চরকুলাঘাটে এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। শুধু রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন নয়, শরীরের বিভিন্ন স্থান পিটিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। এলাকাবাসী জানান, চরকুলাঘাট এলাকার আমির আলীর পুত্র আব্দুল আজিজের সঙ্গে বিয়ে হয় বাতাশি বেগমের। বিয়ের পর থেকে যৌতুক নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। যৌতুকের টাকা না দেয়ায় বাতাশি বেগমকে বাড়ি থেকে বের করে দেয় স্বামী আজিজার ও তার বাবা-মা। ইতিমধ্যে বাতাশির গর্ভে এক সন্তান জন্ম নেয়। বাতাশিকে মারপিট করে বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়ে শ্বশুর আমির আলী ও শাশুড়ি আজিরন বেগম তাদের পুত্র আজিজারকে অন্যত্র বিয়ের ব্যবস্থা করে। এ খবর পেয়ে বাতাশি তার শিশুপুত্রকে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে গেলে শ্বশুর, শাশুড়িসহ পরিবারের লোকজন প্রথমে তাকে বের করে দেয়। বাতাশি চলে যেতে না চাইলে লাঠি দিয়ে তাকে বেধড়ক মারপিট করে। এরপরও বাতাশি চলে না যাওয়ায় শ্বশুর শাশুড়িসহ পরিবারের লোকজন তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারপিট করে। লাঠির আঘাতে কেটে যায় বাতাশির হাত। এ সময় এগিয়ে আসেনি কেউ বাতাশিকে উদ্ধারে। পরে পুলিশ এসে হাতবাঁধা অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। আটক করে নির্যাতনকারী আমির হোসেন ও তার স্ত্রী আজিরন বেগমকে। রাতে আহত অবস্থায় বাতাশি বেগমকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কুলাঘাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী জানান, খবর পেয়ে চকিদার দিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। নারীনেত্রী ফেরদৌসি রহমান বিউটি এ ঘটনায় আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এইচএম মাহফুজার রহমান জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

Syed Rubelনারী নির্যাতনলালমনিরহাটের চরকুলাঘাটে এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। শুধু রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন নয়, শরীরের বিভিন্ন স্থান পিটিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। এলাকাবাসী জানান, চরকুলাঘাট এলাকার আমির আলীর পুত্র আব্দুল আজিজের সঙ্গে বিয়ে হয় বাতাশি বেগমের। বিয়ের পর থেকে যৌতুক নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। যৌতুকের টাকা না দেয়ায়...Amar Bangla Post