যে কোন যৌন বা স্বাস্থ্য সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ডা.মনিরুজ্জামান এম.ডি স্যার। কল করুন- 01707-330660

মাসআলাঃ-৬. পিছন দিক (পায়ুপথ বা

মলদ্বার) দিয়ে সহবাস করা হারাম।

স্ত্রীর পায়ুপথহাদীস সমূহ আর পূর্বে আয়াতের অর্থ অনুযায়ী স্ত্রীর নিতম্বে (পায়ুপথ) সহবাস করা হারাম।

“তোমাদের স্ত্রীরা তোমাদের ক্ষেত স্বরূপ, অতএব যেভাবে ইচ্ছা সহবাস করতে পারো।” আর এ ব্যাপারে আরো অনেক হাদীস রয়েছে।

প্রথম হাদীসঃ উম্মু সালামাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, মুহাজিরগণ যখন মদীনায় আনসারদের নিকট আগমন করলেন তখন তাদের মহিলাদের বিবাহ করলেন। আর মুহাজির মহিলারা চীৎ হতো, কিন্তু আনসারী মহিলারা চীৎ হতো না। একদা এক মুহাজির ব্যক্তি তার আনসারী স্ত্রীকে এরূপ ইচ্ছা করল, কিন্তু সে আল্লাহর রাসূলকে জিজ্ঞেস না করা পর্যন্ত তা করতে অস্বীকৃতি জানাল। উম্মু সালামাহ বলেন, সেই মহিলা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নিকট আসল, কিন্তু জিজ্ঞেস করতে লজ্জাবোধ করল। তাই উম্মু সালামাহ তাকে জিজ্ঞেস করলেন, অতপরঃ “তোমাদের স্ত্রীরা তোমাদের জন্য ক্ষেতস্বরূপ, তোমরা যেভাবে ইচ্ছা ব্যবহার করতে পারো”-(সূরা আল-বাকারাহ ১২৩) আয়াতটি অবতীর্ণ হয়। তিনি বললেন না, শুধুমাত্র একই রাস্তায় সহবাস করা যাবে।[1]

দ্বিতীয় হাদীসঃ ইবনে আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, একদা উমার বিন খাত্তাম (রাঃ) রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নিকট আগমন করলেন। অতঃপর বললেন, হে আল্লাহর রাসূল! আমি ধ্বংস হয়ে গেছি। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন তোমাকে কিসে ধ্বংস করল? তিনি বললেন, আমি রাতে আমার সওয়ারী পরিবর্তন করেছি। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কোন উত্তর দিলেন না। অতঃপর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নিকট এই আয়াত “তোমাদের স্ত্রীরা তোমাদের জন্য ক্ষেতস্বরূপ, তোমরা যেভাবে ইচ্ছা ব্যবহার করতে পারো”-(সূরা আল-বাকারাহ ১২৩) অবতীর্ণ করা হলো। তিনি বললেন, সামনে কর পিছনে কর, আর নিতম্ব ও ঋতুস্রাব থেকে বেঁচে থাক।[2]

তৃতীয় হাদীসঃ আরবী……….

খুযাইমাহ বিন সাবিত (রাঃ) থেকে বর্ণিত, নিশ্চয় এক ব্যক্তি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-কে মহিলাদের নিতম্বে সহবাস করা সম্পর্কে বা পুরুষ মহিলার নিতম্বে সহবাস করা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করল। নবী সাল্লাল্লাহু “আলাইহি ওয়া সাল্লাম উত্তর দিলেন যে, বৈধ। অতঃপর যখন সে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছা করল, নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাকে ডাকলেন বা তাকে ডাকার আদেশ করা হল, সুতরাং তাকে ডাকা হল। নবী সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, তুমি কেমন বললে? কোন দুই ছিদ্রতে (যোনি) পিছন থেকে সম্মুখে হাঁ এটা বৈধ, না পিছন থেকে পিছনে, না বৈধ না। নিশ্চয় আল্লাহ হক-এর ব্যাপারে লজ্জাবোধ করেন না। তোমরা মহিলাদের নিতম্বে সহবাস করোও না। [3]

চতুর্থ হাদীসঃ আরবী……….

যে ব্যক্তি তার স্ত্রীর নিতম্বে সহবাস করবে আল্লাহ তার দিকে দেখবেন না। [4]

পঞ্চম হাদীসঃ আরবী……..

যে ব্যক্তি মহিলাদের নিতম্বে সহবাস করবে সে অভিশপ্ত।[5]

ষষ্ঠ হাদীসঃ আরবী…………

যে ব্যক্তি ঋতুবর্তিনী বা স্ত্রীর নিতম্বে সহবাস করে অথবা কোন জ্যোতিষের নিকট আসে, অতঃপর তার কথাকে সত্য প্রতিপন্ন করে, তাহলে মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর উপর যা অবতীর্ণ হয়েছে তা সে অস্বীকার করল।[6]

আপনি পড়ছেন ইসলামী বাংলা বইঃ বাসর রাতের আদর্শ


[1] . মুসনাদে আহমাদ (৬/৩০৫/৩১০-৩১৮ পৃঃ)। তিরমিযী (৩/৭৫ পৃঃ০ ও তিনি তাকে সহীহ বলেছেন এবং আবূ ইয়ালা (৩২৯/১ পৃঃ) ইবনু আবী হাতিম তার তাফসীরে মুহাম্মাদীয়া (৩৯/১ পৃঃ) ও ইমাম বাইহাকী ৭/১৯৫ পৃঃ) বর্ণনা করেছেন। আর তার সানাদ মুসলিম এর শর্তানুযায়ী সহীহ।

[2] নাসাঈ আল-ইশরাহ ৭৬/২।, তিরমিযী (২/১৬২-বুলাক প্রকাশনা) ইবনু হাতিম (৩৯/১) পৃঃ ত্ববরানী (৩/১৫৬/২) এবং ওয়াহিদী (৫৩) পৃঃ হাসান সানাদে বর্ণনা করেছেন। আর ইমাম তিরমিযী তাকে হাসান বলেছেন ।

[3] ইমাম শাফেয়ী (২/২৬০), বাইহাকী (৭/১৯৬) পৃষ্ঠা, দারেমী (১/১৪৫) পৃষ্ঠা এবং ত্বহাবী (২/২৫) পৃষ্ঠা, ইমাম খাত্তাবী গরীবুল হাদীস (৭৩/২) পৃষ্ঠা। তার সানাদ সহীহ যেমন ইবনুল মুলকিন আল-খুলাসাহ গ্রন্থে, নাসাঈর আল-ইশরাহ (২/৭৬-৭৭/২) পৃষ্টা এবং ত্বহাবী, বাইহাকী, ইবনু আসাকির (৮/৪৬/১) পৃষ্ঠা, তার অপর সূত্রাদি রয়েছে। তার মধ্যে একটি ভাল, যেমন ইমাম মুনযিরী (৩/২০০) পৃষ্ঠা, ইবনু হিব্বান (১২৯৯/১৩০০) পৃষ্ঠা ও ইবনু হাযম (১০/১৮) পৃষ্ঠা সহীহ বলেছেন। আর ইমাম হাফেয (আরবী)এর (৮/১৫৪) পৃষ্ঠা তাদের দু’জনের সাথে একমত প্রদান করেছেন।

[4] নাসাই আল-ইশরাহ (২/৭৭-৮৮/১) পৃষ্ঠা, তিরমিযী (১/২১৮) পৃষ্ঠা, ইবনু হিব্বান (১৩০২) পৃষ্ঠা, ইবনু আব্বাস-এর হাদীস থেকে। আর তার সানাদ হাসান এবং তিরমিযী তাকে হাসান বলেছেন। আর ইবনু রাহওয়াহে তাকে সহীহ বলেছেন। মাসায়েলে মারুযী (২২১) পৃষ্টা, ইবনুল জারুদ (৩৩৪) পৃষ্ঠা, হাসান সানাদ। আর ইবনু দাকীক আলঈদ (১২৮/১) পৃষ্ঠা নাসাঈ, ইবুন আসাকির (১২/২৬৭/১) পৃষ্ঠা এবং আহমাদ (২/২৭২) পৃষ্ঠা।

[5] ইবনু আদী (২১১/১) হাসান সানাদে উকবাহ বিন আমির এর হাদীস থেকে বর্ণনা করেছেন। আবূ দাউদ (২১৬২) নং এবং আহমাদ (২/৪৪৪ ও ৪৭৯) পৃষ্ঠা।

[6] নাসাঈ ব্যতীত সুনানে আরবাহ অর্থাৎ আবূ দাউদ, তিরমিযী, ইবনু মাজাহ, ইমাম নাসাঈ আল-ইশরাহ এর (৭৮) পৃষ্ঠা, দারেমী ও আহমাদ (২/৪০৮ ও ৪৭৬)। যিয়া আল-মুখতার (১০/১০৫/২) পৃষ্ঠা আবূ হুরায়রা হাদীস থেকে সহীহ সানাদ বর্ণনা করেছেন। যেমন আমি নাকদুত তা (আরবী) এর (৬৪) নম্বরে বর্ণনা করেছি। আর ইমাম নাসাঈ (ক/৭৭/২) পৃষ্ঠা ও ইমাম বাত্তাহ আল-ইবানাহ (৬/৫৬/২) পৃষ্ঠা। তিনি বলেন, যে ব্যক্তি তার স্ত্রীর নিতম্বে সহবাস করে তার ব্যাপারে ইবনে আব্বাসকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বললেন, এ ব্যক্তি আমাকে কুফর সম্পর্কে জিজ্ঞেস করছে? এর সানাদ সহীহ। অনুরূপ আবূ হুরায়রা থেকে দুর্বল সানাদে বর্ণনা করা হয়েছে।

ইমাম যাহাবীর সিয়ারু আ’লামুন নাবলা ৯/১৭১/১ পৃষ্ঠা। ইরওয়াউল গালীল (৭/৬৫/৭০) পৃষ্ঠা।

Syed Rubelসঙ্গম বা সহবাসbangla sex,ঋতুস্রাব,বাংলা সেক্স ব্লগ,সেক্সমাসআলাঃ-৬. পিছন দিক (পায়ুপথ বা মলদ্বার) দিয়ে সহবাস করা হারাম। হাদীস সমূহ আর পূর্বে আয়াতের অর্থ অনুযায়ী স্ত্রীর নিতম্বে (পায়ুপথ) সহবাস করা হারাম। “তোমাদের স্ত্রীরা তোমাদের ক্ষেত স্বরূপ, অতএব যেভাবে ইচ্ছা সহবাস করতে পারো।” আর এ ব্যাপারে আরো অনেক হাদীস রয়েছে। প্রথম হাদীসঃ উম্মু সালামাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, মুহাজিরগণ যখন...Amar Bangla Post