Breaking News
Home / যৌন জীবন / হস্তমৈথুন / হস্তমৈথুন বিষয়ক কিছু কথা

হস্তমৈথুন বিষয়ক কিছু কথা

হস্তমৈথুন করার ছবিহস্তমৈথুন অর্থাৎ হাত দ্বারা যৌনাঙ্গ হতে বীর্যপাত ঘটানো, যাকে জ্বলক বলা হয়। এ বিষয়ে ‘একান্ত গোপনীয় কথা’ কিতাবে আলোচনা করা হয়েছে। এখানে কেবল এ বিষয়ে আরো জরুরী কিছু কথা আলোকপাত করা হবে।

 হস্তমৈথুন এটি খুবই বদ অভ্যাস। নবী করীম (সাঃ) বলেন- হস্তমৈথুনের মাধ্যমে বীর্যপাত ঘটানো হারাম। বর্তমানে এটা এমনই একটি জঘন্য মছিবত হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, সারা বিশ্বেই এই অপকর্মটি বিরাজমান। পৃথিবীর এমন কোনো দেশ পাওয়া যাবে না যে দেশে এ হীন কাজটি হচ্ছে না। আর এ হীন কাজের দরুণ অনেক লোক ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। এতা মাত্রাতিরিক্ত সহবাসের চেয়ে ক্ষতিকর। হস্তমৈথুনের ধ্বংসাত্মক প্রতিক্রিয়া সারা শরীরে বিস্তার করে। সাথে সাথে ক্ষতিকারক অনেক রোগও দেখা দেয়। বিশেষ করে, অন্তর, মস্তিক, যৌনাঙ্গ একেবারে বিকল হয়ে যায়।  যে ব্যক্তির এ বিশেষ অঙ্গটি দুর্বল ও বাদ পড়ে যাবে, তাঁর জীবনের অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে। এমন ক্ষতি, শত আফসোস করেও তা আর পূর্বাবস্থায় আনা যায় না। এ খারাপ অভ্যাসটি সব বয়সেই হতে পারে। আর যে ব্যক্তি এ অভ্যাসে অভ্যস্ত হয়ে যায়, তারা এটি করা ছাড়া থাকতে পারে।

 এ বদ অভ্যাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের যেসব সমস্যা দেখা দেয় তন্মধ্যে নিম্মে কিছু উল্লেখ করা হল।

মাথা ব্যাথা, মস্তিকের ব্যাথা, কোমরে ব্যাথা, পায়ে ব্যাথা করে। মাহা চক্কর মারে। এমনকি যে কোনো বিষয়ে সে সন্দিহান হয়ে যায়। শরীর এমন দুর্বল হয়ে যায় যে, হাটুর উপর ভর দেয়া ব্যতিত দাঁড়াতে পারে না। কোমরের ব্যাথায় বসতে পারে না। শুতে গেলে পাঁজর ব্যাথা করে। অনেক সময় চলাফেরা করার সময় অনিচ্ছায় পেশাব বের হয়ে যায়। মাঝে মাঝে উঠ-বস করতেও বীর্যপাত হয়ে যায়। দিন-রাতে স্বপ্নদোষের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। তাঁর বীর্য এত পাতলা হয়ে যায় যে, কখন  বীর্যপাত হল সে সময়টিও তাঁর জানা থাকে না।

 এছাড়াও পেশাব বা পানির মতো বীর্য পাতলা হয়ে যায়। বীর্যের কীট শেষ হয়ে যায়। যে কারণে ভবিষ্যতে সন্তান জম্ম দেয়ার ক্ষমতা রাখে না। দৃষ্টিশক্তি হ্রাস পেতে থাকে। দিল দেমাগ সঠিকভাবে কাজ করে না। অনেকে পাগল হয়ে যায়। অনেকের দিন কাঁপে। পুরুষাঙ্গ বক্র হয়ে একদিকে হেলে পড়ে। যৌনাঙ্গের শিরা বা রগ দুর্বল হয়ে যায়। ধ্বজভঙ্গ হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা বেশি। সাহস হারিয়ে ফেলে। সব সময়ই চিন্তা ও টেনশন কাজ করে। এ রোগটি যে কতো মারাত্মক কেবল সেই বুঝে যে এ রোগে আক্রান্ত। যেমন কবরের অবস্থা মৃত্যু ব্যক্তিই বুঝতে পারে। এজন্যই হাকীমগণ বলে থাকেন, হস্তমৈথুন করা যিনা ব্যভিচার করার চেয়েও অধিক ক্ষতিকারক।

 কারো মাঝে এ রোগটি দেখা দিলে যতদ্রুত সম্ভব আরোগ্যের ব্যবস্থা নিতে হবে। অনেক পিতা-মাতা তাঁর ছেলের এ ব্যাপারে বেখেয়াল থাকে। তাদেরকেও এ বিষয়টি সম্পর্কে সচেতন হওয়া আবশ্যক।

About Syed Rubel

Creative writer and editor of amar bangla post. Syed Rubel create this blog in 2014 and start social bangla bloggin.

Check Also

হস্তমৈথুন করার ক্ষতি কি? জেনে নিন কিভাবে এর থেকে মুক্তি পাবেন

সামপ্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, শতকরা ৯৫ জন পুরুষ এবং শতকরা ৮৯ জন নারী …

No comments

  1. Sir,
    আমার হস্তমৈথুন করার অভভেস আছে। সপ্তাহে ২ বা ৩ বার। আপনি একটু বলুন সপ্তাহে কত দিন হস্তমৈথুন করলে কোনো খতি হয়না?

  2. Admin ame apner sat a kotha bolta cai kevaba bolbo…..?

  3. Apner sat a Kamna jogajog korbo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *