Home / বাংলা সাহিত্য / হুমায়ুন আহমেদ (page 2)

হুমায়ুন আহমেদ

হুমায়ূনবাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র হুমায়ূন স্যারের সকল বাংলা বই ডাউনলোড করুন।  হুমায়ুন আহমেদের বই সমগ্র থেকে বেঁচে নিন আপনার পছন্দের বইটি। হুমায়ুন আহমেদের গল্প ও উপন্যাসের বই পিডিএফ ভার্সন।

বিপদ – হুমায়ূন আহমেদ

আফসার উদ্দিন খুব গম্ভীর ধরনের মানুষ। একটা দেশী জাহান কোম্পানীর বড় অফিসার। বড় অফিসাররা এমনিতেই গম্ভীর হয়ে থাকেন। ইচ্ছে না করলেও তাঁদের থাকতে হয়। আফসার সাহেবের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা সে রকম নয়। তিনি এই পৃথিবীতে গাম্ভীর্য নিয়েই জন্মগ্রহণ করেছেন। কঠিন হয়ে থাকতেই তার ভাল লাগে। হাসি-তামাশা, ঠাট্টা, ফাজলামী তার একেবারে সহ্য …

Read More »

বাঘবন্দী মিসির আলি-হুমায়ূন আহমেদ।

যখন যা প্রয়োজন তা হাতের কাছে পাওয়া গেলে কেমন হত—এ রকম চিন্তা ইদানীং মিসির আলি করা শুরু করেছেন। এবং তিনি খানিকটা দুঃশ্চিন্তায়ও পড়েছেন। মানুষ যখন শারীরিক এবং মানসিক ভাবে দুর্বল হয় তখনি এ ধরনের চিন্তা করে। তখনি  শুধু মনে হয়—সব কেন হাতের কাছে নেই। তিনি মানসিক এই অবস্থার নাম দিয়েছেন—বেহেশত …

Read More »

ভয়- হুমায়ূন আহমেদ

একটা মজার ঘটনা বলি। ক্লাস নিচ্ছি, পড়াচ্ছি থার্মোডিনামিক্স। একটি ছেলেকে প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলাম সে উত্তর দিতে পারল না। বিরক্ত হয়ে বললাম, নাম কি তোমার? সে উঠে দাঁড়াল কিন্তু নাম বলল না। ক্লাসের সব ছেলেমেয়েরা হাসতে শুরু করল। আমি বিস্মিত। তাঁদের হাসির কারণ ধরতে পারছি না। আবার বললাম, নাম কি তোমার? …

Read More »

বাদল দিনের দ্বিতীয় কদম ফুল

বাদল-দিনের প্রথম কদম ফুল করেছ দান, আমি দিতে এসেছি শ্রাবণের গান।। মেঘের ছায়ায় অন্ধকারে রেখেছি ঢেকে তারে এই-যে আমার সুরের ক্ষেতের প্রথম সোনার ধান।। আজ এনে দিলে, হয়তো দিবে না কাল— রিক্ত হবে যে তোমার ফুলের ডাল। এ গান আমার শ্রাবণে শ্রাবণে তব বিস্মৃতি স্রোতের প্লাবনে ফিরিয়া ফিরিয়া আসিবে তরণী …

Read More »

আশাবরী – হুমায়ূন আহমেদ

জানেন, আমাদের বাসায় গত তিন মাস ধরে কোন আয়না নেই। ঠাট্টা করছি না। সত্যি নেই। একমাত্র আয়নাটা ছিল বাবার ঘরে। ড্রেসিং টেবিল নামের এক বস্তুর সঙ্গে লাগানো। একদিন সন্ধায় বিনা নোটিশে সেই আয়না ঝুর ঝুর করে ভেঙ্গে পড়ে গেল। অভ্যাসের বশে আমরা এখনো ড্রেসিং  টেবিলটার সামনে দাঁড়াই। যেখানে আয়না ছিল …

Read More »

আয়না ঘর – হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস

লিলিয়ান এক টুকরা মাচ ভাজা মুখে দিয়ে হাসিমুখে বলল, “ইহা খেতে বড় সৌন্দর্য হয়”। তাহের হো-হো করে হেসে ফেলল। লিলিয়ান ইংরেজিতে বলল, “আমার ধারণা আমি ভুল বাংলা বলি নি। হাসছ কেন?’ তাহের হাসি থামাল না। তার হাসিরোগ আছে। একবার হাসতে শুরু করলে সহজে থামতে পারে না। লিলিয়ান আহত গলায় ইংরেজিতে …

Read More »

অন্যদিন -হুমায়ূন আহমেদ

পান্থ নিবাস বোডিং হাউস। ১১-বি কাঁঠাল বাগান লেন (দোতলা) ঢাকা-৯ চিঠি লিখলে এই ঠিকানায় চিঠি আসে। খুঁজে বের করতে গেলেই মুশকিল। সফিক লিখেছিল, অবশ্যি, তোর কষ্ট হবে খুঁজে পেতে। লোকজনদের জিজ্ঞেস করতে পারিস কিন্তু লাভ হবে বলে মনে হয় না। একটা ম্যাপ একে দিলে ভাল হত। তা দিলাম না, দুর্লভ …

Read More »

বাসর – হুমায়ূন আহমেদ

এখানে কিছু রহস্য আছে। অতীন্দ্রিয় রহস্য! মাঝে-মাঝে কড়া ফুলের গন্ধ পাওয়া যায়। এমন কড়া যে, গা ঝিম-ঝিম করে। মাথা ধরে যায়। জায়গাটা হচ্ছে রিং রোডের মাঝামাঝি—শ্যামলী থেকে আদাবরের দিকে যাবার ইট-বিছানো  রাস্তা। আশেপাশে কোনো ফুলের গাছ নেই যে, ফুলের গন্ধ আসবে। তাছাড়া ফুলের গন্ধে গা ঝিম-ঝিম করে না, নিশ্চয়ই অন্য …

Read More »

অনন্ত নক্ষত্র বীথি -হুমায়ূন আহমেদের সায়েন্স ফিকশন বই

অদ্ভুত এক ধরনের শব্দ হচ্ছে। পরিচিত কোনো শব্দের সঙ্গে এর বিন্দুমাত্র মিল নেই বলে শব্দটাকে ঠিক ব্যাখ্যা করা যাবে না। লক্ষ লক্ষ ঝিঁঝিঁ পোকার আওয়াজকে যদি কোন উপায়ে কমিয়ে অতি সূক্ষ কোনো উপায়ে কমিয়ে অতি সূক্ষ পর্দায় নিয়ে আসা যায় এবং সেই আওয়াজটাকে দিয়ে ঘূর্ণির মতো কিছু করা যায়, তাহলে …

Read More »

আঙুল কাটা জগলু । হুমায়ূন আহমেদ।

স্থান : ফুলবাড়িয়া বাস টার্মিনালের নর্দামার ডান পাশ। সময় : সন্ধ্যা হবে-হবে করছে। মাস :  আষাঢ়ের শেষ কিংবা শ্রাবণের শুরু। তারিখ : জানা নেই। আমি হিমু, তাকিয়ে আছি আকাশের দিকে। কবিরা আকাশের মেঘ দেখে আপ্লুত হন। তবে তাঁরা বাস টার্মিনালের নর্দমার পাশে দাঁড়িয়ে আকাশ দেখেন না। নর্দমার বিকট গন্ধ নাকে …

Read More »