যে কোন যৌন বা স্বাস্থ্য সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ডা.মনিরুজ্জামান এম.ডি স্যার। কল করুন- 01707-330660

যদি আপনার মুখে দুর্গন্ধ থাকে তাহলে জানবেন শুধু আপনি একা নন, আপনার আশপাশের অনেকেই এই সমস্যায় ভুগছেন। আমাদের দেশের ৮৫ ভাগ লোক কোনো না কোনোভাবে এই সমস্যার শিকার। দন্ত চিকিত্সা বিজ্ঞানের ভাষায় মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার এই সমস্যাকে হ্যালিটোসিস বলে।
মুখে দুর্গন্ধের কারন
* মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার প্রধান কারণ হলো সঠিক পদ্ধতিতে নিয়মিত দাঁত ব্রাশ ও সঠিক পেস্ট ব্যবহার না করা।

* তীব্র গন্ধযুক্ত খাবার, যেমন—পেঁয়াজ, রসুনযুক্ত খাবার, ফাস্ট ফুড খাওয়া।

* মাড়ির সমস্যা, উঁচুনিচু বা ফাঁকা দাঁত, যেখানে খাবার জমে-পচে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে।

* দাঁতে ক্যারিজ হলে।

* ড্রাই মাউথ সিনড্রোম।

* মুখ দীর্ঘ সময় ধরে শুকনো থাকলে।

* তামাকজাতীয় দ্রব্যাদি বা জর্দা-চুনসহ পান খেলে।

* মুখের ক্যান্সারে।

* জিহ্বায় ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ।

* এ ছাড়া যদি আপনার ডায়াবেটিস, ক্রনিক সাইনুসাইটিস, ব্রংকাইটিস, নিউমোনিয়া, ক্রনিক কফ, পেপটিক আলসার বা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থাকে তাহলে আপনার মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।

মুখে দুর্গন্ধের কারণে দাঁতের রোগ

দীর্ঘদিন যদি আপনার মুখে দুর্গন্ধ বা হ্যালিটোসিস রোগ থাকে, তবে সেখান থেকে প্ল্যাক বা ক্যালকুলাস জমে দন্তক্ষয় হতে পারে। এছাড়া মাড়ি দুর্বল হয়ে যাওয়া বা মাড়ি থেকে রক্ত পড়ার অন্যতম কারণ হলো হ্যালিটোসিস রোগ।

প্রতিরোধের কিছু উপায়

অনেকেই হয়তো মনে করেন, বাজারে অনেক সুগন্ধি মাউথওয়াস পাওয়া যায়, যা দিয়ে কুলকুচি করলে ভালো হয়ে যাবে। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। এগুলো শুধু দুর্গন্ধ ঢেকে রাখে, কিন্তু দন্তরোগ বা অন্যান্য সমস্যা থেকে মুক্ত করে না। এজন্য দিনে দু’বার Anti bacterial মাউথওয়াস দিয়ে কুলকুচি করুন।

এছাড়াও…

* সকালে ও রাতে খাবার পর দাঁত ৩-৪ মিনিট ধরে ব্রাশ করুন।

* মেডিকেটেড টুথপেস্ট যেমন mediplus, sansodine ব্যবহার করতে পারেন।

* দিনে অন্তত একবার দাঁতে ফ্লস করুন।

* Tongue cleaner বা ব্রাশ দিয়ে জিহবার ওপরের অংশ ভালো করে পরিষ্কার করুন।

* সিগারেট, তামাকজাতীয় দ্রব্য, জর্দা, পান—এসব পরিহার করুন।

* বেশি করে পানি খান।

* নন-সুগার কেমিক্যালমুক্ত পযবরিহম মঁস খেতে পারেন। এটা আপনার মুখে লালার ক্ষরণ বৃদ্ধি করে আপনার মুখ দুর্গন্ধমুক্ত রাখবে।

* এছাড়া যদি আপনার ডায়াবেটিস, ক্রনিক সাইনুসাইটিস, ব্রংকাইটিস, নিউমোনিয়া, ক্রনিক কফ, পেপটিক আলসার বা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থেকে থাকে, তাহলে সেগুলো অতি দ্রুত সমাধানের জন্য বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আশা করি উপরোক্ত নিয়ম মেনে চললে এই সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি পাবেন। তাহলে আর দেরি কেন? বিজ্ঞাপনের ভাষায় এখন কণ্ঠ ছাড়ুন জোরে!-আমার দেশ অনলাইন

Syed Rubelস্বাস্থ্য সমস্যাযদি আপনার মুখে দুর্গন্ধ থাকে তাহলে জানবেন শুধু আপনি একা নন, আপনার আশপাশের অনেকেই এই সমস্যায় ভুগছেন। আমাদের দেশের ৮৫ ভাগ লোক কোনো না কোনোভাবে এই সমস্যার শিকার। দন্ত চিকিত্সা বিজ্ঞানের ভাষায় মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার এই সমস্যাকে হ্যালিটোসিস বলে। মুখে দুর্গন্ধের কারন * মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার প্রধান কারণ হলো সঠিক পদ্ধতিতে...Amar Bangla Post