Home / সংবাদ সারাদিন / মতামত / হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচনের আধুনিক সংস্করণ

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচনের আধুনিক সংস্করণ

হুমায়ূন আজাদহুমায়ুন আজাদের কিছু বক্তব্য (প্রবচন) নাস্তিক গোষ্ঠীর কাছে বেদবাক্যের মত। তবে আমার মনে হয় বর্তমানকালে হুমায়ুন আজাদের সেই সকল ব্যাকডেটেড প্রবচন প্রায় অচল। আর সেই অচল মাল সচল করতে প্রয়োজন সংষ্কার। হুমায়ুন আজাদ ভক্তদের জন্য সেই প্রবচনসমূহ সংষ্কারের দায়িত্ব নিয়েছে নয়ন চ্যাটার্জি। আসুন হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচনের আধুনিক সংস্করণসমূহ জেনে নেই—–

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“আদি মানুষ সিংহের প্রশংসা করে, কিন্তু আসলে গাধাকেই পছন্দ করে।”
আধুনিক সংস্করণ-
“ নাস্তিকরা সবসময় দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের কথা বলে, কিন্তু আসলে বিদেশের অ্যাসাইলামকেই বেশি পছন্দ করে।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“পুঁজিবাদের আল্লার নাম টাকা, মসজিদের নাম ব্যাংক। ”
আধুনিক সংস্করণ-
“নাস্তিকদের ভগবানের নাম ইউরো, মন্দিরের নাম ডয়েচে ভেলে।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“সুন্দর মনের থেকে সুন্দর শরীর অনেক আকর্ষণীয়। কিন্তু ভণ্ডরা বলেন উল্টো কথা”
আধুনিক সংস্করণ-
“দেশের মাটি থেকে ইউরোপের মাটি অনেক আকর্ষণীয়। কিন্তু ভণ্ডরা বলে উল্টো কথা।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“হিন্দুরা মূর্তিপূজারী; মুসলমানেরা ভাবমূর্তিপূজারী। মূর্তিপূজা নির্বুদ্ধিতা; আর ভাবমূর্তিপূজা ভয়াবহ।”
আধুনিক সংস্করণ-
“প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা দেশপ্রেমিক, শাহবাগীরা বিদেশপ্রেমিক। দেশে থাকা তাদের চোখে নির্বুদ্ধিতা, তাই ‘৩ বেলা খানা ও পাকা পায়খানার’ লোভ ভয়াবহ।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“শামসুর রাহমানকে একটি অভিনেত্রীর সাথে টিভিতে দেখা গেছে। শামসুর রাহমান বোঝেন না কার সঙ্গে পর্দায়, আর কার সঙ্গে শয্যায় যেতে হয়।”
আধুনিক সংস্করণ-
“হুমায়ুন আজাদ আপন মেয়ের দেহ ভোগ করতে না পারা নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছে। হুমায়ুন আজাদ বোঝে না যে, দুনিয়ার সব মেয়েকে নিয়েই শয্যায় যাওয়া যায় না।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“আগে কারো সাথে পরিচয় হ’লে জানতে ইচ্ছে হতো সে কী পাশ? এখন কারো সাথে দেখা হ’লে জানতে ইচ্ছে হয় সে কী ফেল? ”
আধুনিক সংস্করণ-
“আগে কোন নাস্তিকের সাথে পরিচয় হলে জানতে ইচ্ছে হতো সে প্রতিদিন কতটুকু গাজা খায় ? আর এখন দেখা হলে জানতে ইচ্ছে করে- ‘ইউরোপের ভিসা’ জোগার করতে পেরেছে কি না ?”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“শ্রদ্ধা হচ্ছে শক্তিমান কারো সাহায্যে স্বার্থোদ্ধারের বিনিময়ে পরিশোধিত পারিশ্রমিক।”
আধুনিক সংস্করণ-
“নাস্তিকতা হচ্ছে জার্মানির ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টির নিকট থেকে প্রাপ্ত ফ্রি থাকা-খাওয়ার নিশ্চয়তা।”

হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“আজকাল আমার সাথে কেউ একমত হ’লে নিজের সম্বন্ধে গভীর সন্দেহ জাগে। মনে হয় আমি সম্ভবত সত্যভ্রষ্ট হয়েছি, বা নিম্নমাঝারি হয়ে গেছি।”
আধুনিক সংস্করণ-
“আজকাল কোন নাস্তিক মরলে ঘোর সন্দেহ জাগে, মনে হয় ওদেরেই কেউ ইস্যু জাগাতে মেরে ফেললো কি না।”
১০
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“আগে কাননবালারা আসতো পতিতালয় থেকে, এখন আসে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।”
আধুনিক সংস্করণ-
“আগে নাস্তিকেরা আসতো ফ্রি-সেক্সের দাবি নিয়ে, এখন আসে পুটুকামের দাবি নিয়ে।”
১৩
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“ব্যর্থরাই প্রকৃত মানুষ, সফলেরা শয়তান। ”
আধুনিক সংস্করণ-
“নাস্তিকেরা শুধুই ইসলামবিদ্বেষী, আর হিন্দুরাও ফেসবুকে আসলে নাস্তিকের বেশ ধরে।”
১৪
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“আমাদের অঞ্চলে সৌন্দর্য অশ্লীল, অসৌন্দর্য শ্লীল। রুপসীর একটু নগ্নবাহু দেখে ওরা হৈ চৈ করে, কিন্তু পথে পথে ভিখিরিনির উলঙ্গ দেহ দেখে ওরা একটুও বিচলিত হয় না।”
আধুনিক সংস্করণ-
“নাস্তিকদের নিকট মসজিদ অসহ্য, কিন্তু মন্দির পূজনীয়। মসজিদের একঘণ্টার ওয়াজ শুনে ওরা হৈ চৈ করে, কিন্তু রমনা কালী মন্দিরে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ আর শিবসেনার নেতাদের নিয়ে আসলে ওরা এতটুকু বিচলিত হয় না।”
১৫
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“পরমাত্মীয়ের মৃত্যুর শোকের মধ্যেও মানুষ কিছুটা সুখ বোধ করে যে সে নিজে বেঁচে আছে।”
আধুনিক সংস্করণ-
“সহযোগী নাস্তিক ব্লগারের মৃত্যুর মধ্যেও নাস্তিক কিছুটা সুখ বোধ করে যে সে হয়ত এর উছিলায় ইউরোপের ভিসা পেতে পারে।”
১৬
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“একটি স্থাপত্যকর্ম সম্পর্কেই আমার কোনো আপত্তি নেই, তার কোনো সংস্কারও আমি অনুমোদন করি না। স্থাপত্যকর্মটি হচ্ছে নারীদেহ।”
আধুনিক সংস্করণ-
“অমুসলিমদের ইসলামবিরোধী সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে নাস্তিকদের কোন আপত্তি নেই, তার কোনো সংস্কারও তারা অনুমোদন করে না। কারণ তারা ঐ দলেরই সদস্য।”
১৭
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“প্রতিটি দগ্ধ গ্রন্থ সভ্যতাকে নতুন আলো দেয়।”
আধুনিক সংস্করণ-
“প্রতিটি মৃত নাস্তিক এদেশের সাধারণ মানুষকে নতুন করে স্বস্তি দেয়।”
১৮
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“বাঙলার প্রধান ও গৌণ লেখকদের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে প্রধানেরা পশ্চিম থেকে প্রচুর ঋণ করেন, আর গৌণরা আবর্তিত হন নিজেদের মৌলিক মূর্খতার মধ্যে।”
আধুনিক সংস্করণ-
“বাঙলার প্রধান ও গৌণ নাস্তিকদের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে প্রধানেরা পশ্চিমের এজেন্সি নেয়, আর গৌণরা আশায় বুক বেধে ‘আর্টিকেল-১৯’-এ আশা-যাওয়া করে।”
২০
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“বাঙালি মুসলমানের এক গোত্র মনে করে নজরুলই পৃথিবীর একমাত্র ও শেষ কবি। আদের আর কোনো কবির দরকার নেই।”
আধুনিক সংস্করণ-
“হিন্দু লেখকদের সকলেই মনে করে রবীন্দ্রনাথই পৃথিবীর একমাত্র ও শেষ কবি। ওদের আর কোনো কবির দরকার নেই।”
২১
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“বাঙালি যখন সত্য কথা বলে তখন বুঝতে হবে পেছনে কোনো অসৎ উদ্দেশ্য আছে।”
আধুনিক সংস্করণ-
“হিন্দু যখন ভালোমানুষি দেখায় তখন বুঝতে হবে তার বগলের তলে ইট আছে।”
২২
হুমায়ুন আজাদের ব্যাকডেটেড প্রবচন-
“পাকিস্তানিদের আমি অবিশ্বাস করি, যখন তারা গোলাপ নিয়ে আসে, তখনও।”
আধুনিক সংস্করণ-
“হিন্দুদের আমি অবিশ্বাস করি, যখন তারা প্রসাদ নিয়ে আসে, তখনও।”

নয়ন চ্যাটার্জির ফেইসবুক থেকে।

About Syed Rubel

Creative Writer/Editor And CEO At Amar Bangla Post. most populer bloger of bangladesh. Amar Bangla Post bangla blog site was created in 2014 and Start social blogging.

Check Also

স্পর্শিয়া, আপনি ধর্ষণকে উস্কে দিচ্ছেন না তো!

জানুয়ারীর ৩ তারিখে সকাল ১১ টায় ৪৮ মিনিটে নাট্য অভিনেত্রী ও মডেল তারকা  অর্চিতা স্পর্শিয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *