যে কোন যৌন বা স্বাস্থ্য সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ডা.মনিরুজ্জামান এম.ডি স্যার। কল করুন- 01707-330660

মেদশরীরের মেদ কমাতে খাবারের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে পানীয়। অনেকেই মেদ কমাতে পানীয় কী খাচ্ছেন তার দিকে খেয়াল না করে খাবারের বিষয়ে বেশ সচেতন। যার  কারণে অসচেতনতায় খেয়ে ফেলেন কোমল পানীয় ও সোডা। পানি এটি সর্বকালের সেরা পানীয়। আপনার প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় নিয়মিত পুষ্টিকর পানীয় রাখুন। যা আপনার অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে সাহায্য করবে। পানি পান করার কারণে আপনার শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করবে। পানিকে আরো স্বাস্থ্যসম্মত করতে সঙ্গে লেবু যোগ করুন। সারাদিন কাজ থেকে বাসায় ফিরে এক গ্লাস লেবুর শরবত বানিয়ে খান তাতে আপনার সব ক্লান্তি দূর হয়ে গেছে। সঙ্গে অতিরিক্ত মেদ ঝরাতেও সাহায্য করবে। সবজি স্যুপ যা পুষ্টিতে পরিপূর্ণ। এটি আপনার হজম ক্ষমতা বাড়াবে। রাতের খাবার খাওয়ার আগে এক বাটি সবজি স্যুপ ক্যালরি কমাতে সাহায্য করবে। সবুজ চা খান। সবুজ চা অতিরিক্ত ওজন কমাতে এবং শরীরের শর্করা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করবে। প্রতিদিন দুই কাপ সবুজ চা আপনার শরীরে অনেক বেশি উপকার করবে। শরীরের অনেক রোগের বিরুদ্ধে এবং ইমিউন সিস্টেম উন্নতিতে এটি কাজ করে। সবজির জুস সবজির স্যুপের মতো এটি কাজ করে। চাইলে সবজি জুস গ্রীষ্মে ও স্যুপ শীত মৌসুমে খেতে পারেন। এটা শুধু সোডিয়াম কমানোর নিশ্চয়তা দিবে। কালো কফি কালো কফি হজমের ক্ষমতা বাড়ায়। এটি দ্রুত হারে চর্বি কমাতে সাহায্য করে এবং শক্তির মাত্রা বৃদ্ধি করে। কফিতে এক ধরনের ক্যাফেন থাকে যা আপনি যখন ঘুমিয়ে থাকেন তখন ক্যালরি কমাতে সাহায্য করে। কিন্তু দিনে দু’বারের বেশি খেলে পাকস্থলী খাদ্য হজমে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। পাস্তুরিত দুধ পাস্তুরিত দুধ চর্বিহীন প্রোটিন সমৃদ্ধ। এর ভিটামিন-ডি ও ক্যালসিয়াম হাড় মজবুত রাখে। আপনার শরীরে অতিরিক্ত ক্যালোরি যোগ না করে দৈনিক ভিটামিন পেতে এটি কাজ করবে।

Syed Rubelখাদ্য ও পুষ্টিশরীরের মেদ কমাতে খাবারের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে পানীয়। অনেকেই মেদ কমাতে পানীয় কী খাচ্ছেন তার দিকে খেয়াল না করে খাবারের বিষয়ে বেশ সচেতন। যার  কারণে অসচেতনতায় খেয়ে ফেলেন কোমল পানীয় ও সোডা। পানি এটি সর্বকালের সেরা পানীয়। আপনার প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় নিয়মিত পুষ্টিকর পানীয় রাখুন। যা আপনার অতিরিক্ত মেদ...Amar Bangla Post