যে কোন যৌন বা স্বাস্থ্য সমস্যায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ডা.মনিরুজ্জামান এম.ডি স্যার। কল করুন- 01707-330660

muslim-couple-9মাসআলা-৬৩ : ইসলামী আইনগত দিক থেকে স্ত্রীর অধিকার সমূহ স্বামীর অধিকারের ন্যায়ই গুরুত্ব পূর্ণঃ

“সুলাইমান বিন আমর বিন আহওয়াস (রাযিয়াল্লাহু আনহু) তাঁর পিতা থেকে বর্ণনা করেছেন যে, সে বিদায় হজ্বে রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর সাথে ছিল, নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এক খুৎবায় আল্লাহর প্রশংসার পর লোকদেরকে নসিহত করলেন, তিনি এক হাদীসে এ ঘটনাও বর্ণনা করেছেন যে, রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ নারীদের ব্যাপারে ভাল সিদ্ধান্ত গ্রহণ কর, তারা তোমাদের নিকট বন্দীর ন্যায়, হুশিয়ার হও, স্বামীদের তাদের স্ত্রীদের প্রতি অধিকার রয়েছে, এমনিভাবে স্ত্রীদের ও স্বামীদের প্রতি অধিকার রয়েছেঃ।(তিরমিযী) [1]

মাসআলা-৬৪ : স্ত্রীদের অধিকার আদায় করা ওয়াজিবঃ

“আবদুল্লাহ বিন আমর বিন আস (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ হে আবদুল্লাহ! আমি জানতে পারলাম যে তুমি নাকি একাধারে দিনে রোযা রাখছ আর রাতে নামায পড়ছ? আমি বললামঃ হ্যাঁ, হে আল্লাওর রাসূল, এরকমই করি। তিনি বললেনঃ এমন কর না, রোযাও রাখ আবার তা ভঙ্গও কর (নফল রোযা), (নফল) নামাযও পড় আবার আরামও কর, তোমার শরীরের প্রতি তোমার হক রয়েছে, তোমার চোখের প্রতি তোমার হক রয়েছে, তোমার স্ত্রীর প্রতি তোমার হক রয়েছে”। (বোখারী)[2]

মাসআলা-৬৫ : স্ত্রীর হক আদায় না করা পাপের কারণঃ

“আবদুল্লাহ বিন ওমার (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ একজন মানুষকে গোনাহগার হওয়ার জন্য এতটুকই যথেষ্ট যে যাদের খরচ বহন করা তাঁর দায়িত্ব তাদের প্রতি খরচ না করা”।(মুসলিম)[3]

মাসআলা-৬৬ :  স্ত্রীর হক আদায় না করা কবীরা গোনাহঃ

“আবু হুরাইরা (রাযিয়াল্লাহু আনহু) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ আমি দু’প্রকার দুর্বলের হক নষ্ট করা হারাম করছি, এতীম এবং স্ত্রীঃ। (ইবনু মাযা)[4]

মাসআলা-৬৭ :  স্ত্রীর কাছ থেকে হরণ করা তাঁর ন্যায্য অধিকার সমূহ কিয়ামতের দিন স্বামীকে আদায় করতে হবেঃ

“আবু হুরাইরা (রাযিয়াল্লাহু আনহু) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ কিয়ামতের দিন তোমাদেরকে একে অপরের হক অবশ্যই আদায় করতে হবে, এমনকি শিং বিশিষ্ট বকরীর কাছ থেকে শিং হীন বকরীর বদলাও নেয়া হবে।(মুসলিম) [5]

নোটঃ চতুস্পদ জন্তুর জন্য যদিও আযাব ও সওয়াব নেই তবুও কিয়ামতের দিন একের কাছ থেকে অপরের হক আদায় করে দেয়ার জন্য তাদেরকে জীবিত করা হবে, এ থেকে বান্দার হকের গুরুত্ব বুঝা যায়।

মাসআলা-৬৮ : স্ত্রীর প্রতি যুলুম করা থেকে বিরত থাকা উচিতঃ

“আবদুল্লাহ বিন ওমার (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ মাযলুমের (অত্যাচারিতের) বদ দু’আ থেকে সর্তক থাক, কেননা তাঁর দু’আ অগ্নি স্ফুলিঙ্গের ন্যায় দ্রুত আকাশে চলে যায়”।(হাকেম)[6]  আরো পড়ুনঃ স্ত্রীর অধিকার সমূহ

আপনি পড়ছেনঃ ত্বালাকের মাসায়েল বই থেকে।

[1]  আলবানী লিখিত সহীহ সুনান তিরমিযী। খঃ ১, হাদীস নং-৯২৯।

[2]  কিতাবুন নিকাহ, বাব লিযাওযিকা আলাইকা হাক।

[3]  কিতাবুয্‌ যাকাত, বাব ফযলু নাফাকা আলাল ইয়াল ওয়াল মামলুক।

[4]  আলবানী লিখিত সহীহ সুনান ইবনু মাযা। খঃ ২, হাদীস নং-২৯৬৭।

[5]  কিতাবুল বির ওয়াসসিলা, বাব তাহরিম আয্‌ যুলম।

[6]  আলবানী লিখিত সিলসিলা আহাদীসসহীহা খঃ ২, হাদীস নং-৮৭০।

Syed Rubelইসলাম ও নারীবই থেকেমাসআলা-৬৩ : ইসলামী আইনগত দিক থেকে স্ত্রীর অধিকার সমূহ স্বামীর অধিকারের ন্যায়ই গুরুত্ব পূর্ণঃ “সুলাইমান বিন আমর বিন আহওয়াস (রাযিয়াল্লাহু আনহু) তাঁর পিতা থেকে বর্ণনা করেছেন যে, সে বিদায় হজ্বে রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর সাথে ছিল, নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এক খুৎবায় আল্লাহর প্রশংসার পর লোকদেরকে...Amar Bangla Post