Home / স্বাস্থ্য / খাদ্য ও পুষ্টি / রসুনের গুণাগুণ

রসুনের গুণাগুণ

মানুষের শরীরে রসুন বিভিন্ন উপকারে আসে। রসুনে যে সব রোগ সারে—

রসুনে ভিটামিন এ, বি, সি, ডি, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, আয়রণ, আয়োডিন এবং উগ্রশক্তির জীবাণু নাশক দুটি শক্তি বর্তমান। ক্যালফোর্নিয়া শহরে একটি আলোচনা আসর বসেছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন, বিশ্বের রসুন বিশেষজ্ঞরা। এক একটি দেশ এক একটি বিশেষ রোগের উপর তাদের যে সব পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে ছিলেন তা থেকে জানা যায় বাহ্য প্রয়োগে বিছের কামড়ে, বোলতার কামড়ে এবং ফোড়ায় রসুন ব্যবহারে ভালো ফল পাওয়া যায়। আর আভ্যন্তরীণ প্রয়োগে কোষ্ঠবদ্ধতায়, হাতে পায়ে খিল ধরায়, ইনফ্লুয়েঞ্জজায়, ধমনীর সঙ্কোচনে, সর্দিকাশিতে, হাঁপানিতে, গলাবুক জ্বালায়, অগ্নিমান্দ্যে, অন্ত্রপ্রদাহে, পিত্তথলির পাথুরিতে, হাইব্লাড প্রেসারে, অর্শরোগে, ক্ষয়রোগে, গলগন্ডে, ক্রিমিতে, হুপিং কাশিতে, বমিতে, বুক ধড়ফরানিতে রসুনের ব্যবহারে ভালো ফল পাওয়া যায়।

বিভিন্ন রোগে রসুনের ব্যবহারঃ

১। যৌন শক্তি দীর্ঘস্থায়ীতেপ্রতিদিন নারী ও পুরুষের প্রত্যেকে যদি দু চামচ আমলকির রসের সঙ্গে ২ কোয়া রসুন বেটে খান তবে যৌন শক্তি বৃদ্ধি হবে।

২। বাতের বেদনায়—রোজ ১ কোয়া করে রসুন গরম ভাতের সঙ্গে চিবিয়ে খেলে বা ১০০ গ্রাম তেলে ২০ কোয়া ভেজে সেই তেল দিয়ে দু’বার করে মালিশ করলে ব্যথা কমে।

৩। পেটের বায়ুতে—১ কাপ ঠাণ্ডা পানিতে ৪/৫ ফোটা রসুনের রস মিশিয়ে রোজ সকালে খেলে ৭ দিনে পেটের বায়ু জমা বন্ধ হবে।

৪। অকাল বার্ধক্য—রোজ ৪ কোয়া করে রসুন ভেজে বা বেটে তরকারী বা আটা, ময়দার ছাতুর সঙ্গে মিশিয়ে খেলে অকাল বার্ধক্য দূর করে।

৫। দেহের ক্ষয়ে—১ কাপ দুধের সঙ্গে ২/৩ কোয়া রসুন সেদ্ধ করে মিশিয়ে রোজ খেলে শরীরের ওজন বৃদ্ধি পায় ও ক্ষয় রোধ হয়।

৬। গরু মোষের ঘা বা পোকাতে—৮/১০ কোয়া রসুন বেটে ক্ষতের জায়গায় লাগালে ঘা শুকিয়ে যাবে। অন্ততঃ ৭ দিন লাগাতে হবে।

৭। কুকুর কামরালেরোজ ৫/৬ ফোঁটা রসুনের রস গরম দুধে মিশিয়ে খেলে কুকুরের কামরানোর বিষ নাশ হয়।  

আমাদের পোস্ট পড়ে ভালো লাগলে আপনার সামাজিক নেটওয়ার্কে শেয়ার করুন।

About Syed Rubel

Creative writer and editor of amar bangla post. Syed Rubel create this blog in 2014 and start social bangla bloggin.

Check Also

সেক্স উত্তেজনা বাড়ানোর খাবার

যৌন উদ্দীপনা বাড়ানোর পাঁচটি খাবারের নাম

আমার বাংলা পোস্ট.কম : দেহে যৌন উদ্দীপনা আনতে অনেকেই ভায়াগ্রার সাহায্য নেন । বর্তমান জীবনযাপন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *