Home / যৌন জীবন / সঙ্গম বা সহবাস / সঙ্গিনীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার আগে চারটি সম্পর্কে জানুন!

সঙ্গিনীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার আগে চারটি সম্পর্কে জানুন!

নতুন জীবন সঙ্গিনীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করার সময় প্রশ্ন করার বিষয়টি হয়তো আপনার কাছে অদভূত লাগতে পারে।

কিন্তু যৌন জীবনে এই চারটি বিষয় সম্পর্কে জানার প্রয়োজন আছে। কারণ, যৌনতায় যেমন মনমাতানো সুখ লাভ করা যায়, তেমনি এর বিপরীত অস্বস্তিকর বেদনাও আছে। ভুল পন্থায় শারীরিক সম্পর্ক বা যৌনতা উপভোগ করার ফলে দেখা দিতে পারে নানান শারীরিক সমস্যা ও দৈহিক ক্ষতি। আর তাই নতুন জীবন সঙ্গিনীর সঙ্গে যৌনতা উপভোগ করার আগে সাবধান ও সতর্ক হওয়ার জরুরি। তাই নতুন জীবন সঙ্গিনীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করার পূর্বে নিচের চারটি প্রশ্ন করুণ।

প্রশ্ন ১ : HIV পরীক্ষা (এইডস)

আপনার জীবন সঙ্গিনীর সম্পর্কে এটি জানার খুব প্রয়োজন। কখনো আপনার জীবন সঙ্গী এইচএইভি পরীক্ষা করেছে কিনা তা জেনে নিন। যদি আপনার জীবন সঙ্গিনীর উত্তর হ্যাঁ হয়ে থাকে, তাহলে জিজ্ঞাসা করুণ সে রিপোর্টের ফলাফল কি ছিল বা কি চিকিৎসা করা হয়েছে, এইচআইভি চিকিৎসা ব্যাপারেও জেনে রাখার প্রয়োজন। তা না হলে এ থেকে প্রাণের ঝুঁকি সৃষ্টি হতে পারে।

আরও পড়ুন >> যৌন রোগ কি? গণোরিয়া-সিফিলিস_এইডস সম্পর্কে জানুন

প্রশ্ন ২ : পূর্বের যৌন জীবন কেমন ছিল?

আপনার জীবন সঙ্গিনীর যদি ইতিপূর্বে অন্য কারোর সাথে সম্পর্কে থাকে বা এটি তার দ্বিতীয় বিয়ে হয়ে থাকে তাহলে এ সম্পর্কে জানাও গুরুত্বপূর্ণ। এটি সম্পর্কের জন্য নয় বরং আপনার সুস্বাস্থ্য বা স্বাস্থ্য রক্ষার জন্যই প্রয়োজন। পূর্বের জীবন সঙ্গিনীর সঙ্গে সম্পর্কে খারাপ ছিল না ভালো ছিল সে প্রশ্ন নয়, প্রশ্ন হলো পূর্বের জীবন সঙ্গিনীর কোনও শারীরিক অসুস্থতা ছিল কিনা কিংবা তার একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন কি না। কেননা, একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে যৌন সম্পর্ক যৌনরোগের বিপদ ডেকে আনতে পারে এবং এই রোগে আপনিও আক্রান্ত হতে পারেন।

প্রশ্ন ৩ : কনডম ব্যবহারে এলার্জি নেই তো?

জন্মনিরোধের সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে কনডম। সাধারণত সবাই ল্যাটেক্স কনডম ব্যবহার করেন। কিন্তু ল্যাটেক্স কনডম সবার জন্য উপযুক্ত নাও হতে পারে। অথবা আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীর এটিতে অ্যালার্জি থাকতে পারে। এ থেকে পুরুষাঙ্গ কিংবা যোনিতে র‍্যাশ হতে পারে। আর এর প্রভাবে শারীরিক সম্পর্ক থেকে বিরত থাকতে হতে পারে বেশ কিছুদিন। আবার এর থেকে শ্বাসকষ্টও হতে পারে। সুতরাং এই রকম পরিস্থিতে পরার আগে সাবধান হওয়ার প্রয়োজন।

আরও পড়ুন >> কনডম ব্যবহারের ১০ টি ভূল।

প্রশ্ন ৪ : কনডম ব্যবহারে অনিহা নেই তো?

কনডম গর্ভ নিরোধের সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলেও অনেকেই কনডম ব্যবহার করতে পছন্দ করেন না। আর আপনার জীবন সঙ্গিনীর যদি কনডম ব্যবহারে অনিহা বা আপত্তি থাকে তাহলে গর্ভাবস্থা এড়াতে গর্ভনিরোধ বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন। কিন্তু কনডম ব্যবহারের সবচেয়ে ভালো। কনডম শুধুমাত্র গর্ভনিরোধ করে না বরং যেকোন ধরণের যৌন সংসর্গজনিত রোগের আক্রমণ থেকে বাচাতে কনডম ব্যবহারের উপকারিতা আছে।

আপনি কি জন্মনিয়ন্ত্রণ বা গর্ভনিরোধ পদ্ধতি সম্পর্কে আরও জানতে ও শিখতে আগ্রহী? আগ্রহী হলে আপনি আমাদের জন্মনিয়ন্ত্রণ বিভাগে যান।

আপনার যৌন জীবনে সাহায্য করতে পারে এমন আরও আর্টিকেল তালিকা দেখুন…

০১ স্ত্রীর সাথে সহবাস করার নিয়ম (A-Z)

০২ প্রশ্নঃ ওরাল সেক্স করা কি ইসলামে জায়েয?

০৩ নব বিবাহিত ছেলে-মেয়েদের জন্য জানার মত কিছু কথা

স্বাস্থ্য সচেতনতায় এই আর্টিকেলটি শেয়ার করে আপনার বন্ধু-বান্ধবীদেরকে পড়তে সাহায্য করুণ।  আমাদের ব্লগ পোস্ট সম্পর্কে আপনার মতামত জানাতে কমেন্ট করুণ।

About Syed Rubel

Creative writer and editor of amar bangla post. Syed Rubel create this blog in 2014 and start social bangla bloggin.

Check Also

হায়েয

হায়েয অবস্থায় স্ত্রী সহবাসের আরও কিছু মাসআলা

হায়েয অবস্থায় স্ত্রী সহবাসের আরও কিছু মাসআলা পড়ুন “পরিপূর্ণ স্বামী স্ত্রীর মধুর মিলন” বই থেকে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *