Breaking News
Home / যৌন জীবন / যৌন বিষয়ক নিবন্ধন / দাম্পত্য জীবনের প্রয়োজনীয় গুণাবলী

দাম্পত্য জীবনের প্রয়োজনীয় গুণাবলী

দাম্পত্যদাম্পত্য-জীবন একটা বিরাট পরীক্ষা-ক্ষেত্র। দুইটি তরুণ-তরুণী প্রাণীকে জীবনের  নামে একত্রে বাঁধিয়ে দিয়ে সুখে, দুঃখে, অসুখে-বিসুখে, হাসি-কান্নায় সারা জীবন একত্রে কাটাইতে বলা উহাদের উপর বিপুল কর্তব্য-ভার চাপানো ছাড়া আর কিছু নয়।

যৌবন-উন্মত্ত দুইটি তরুণ-তরুণীর পক্ষে পরস্পরের ভোগ-স্পৃহার দু’চার মাস বা দু’চার বৎসর একত্রে কাটিয়ে দেওয়া আশ্চর্য বা কঠিন নয়।

কিন্তু বিবাহ-জীবনত অস্থায়ী যৌন-সম্বন্ধ মাত্র নয়। ইহাতে অধিকার ও দায়িত্ব, প্রীতি ও অপ্রীতি, সরসতা ও তিক্ততা সমভাবে বিদ্যমান আছে এবং তা আছে বলেই স্বামী স্ত্রীর দাম্পত্য জীবনকে বিশ্ব-সংসার বা World in miniature বলা হয়।

বিবাহের সময় সমস্ত ধর্মেই মন্ত্র আওড়াইবার প্রথা আছে। কিন্তু বিবাহিত জীবনকে সুখী করিবার কোনও দৈব শক্তি ঐ সমস্ত মন্ত্রের নাই।

দাম্পত্য জীবনের প্রয়োজনীয় গুণাবলী  

কঠোর সাধনা, নৈষ্ঠিক একাগ্রতা, বিপুল আত্মসংযম, অপরিসীম ধৈর্য্য, আন্তরিক সহানুভূতিই কেবল আমাদের দাম্পত্য-জীবনকে আনন্দ-দায়ক করে তুলতে পারে। কিন্তু প্রকৃত শিক্ষার অভাবে আমাদের ভাবী দম্পতিরা দাম্পত্য-জীবনকে সুখী করার কৌশল অবগত হইতে পারে না এবং পারে না বলেই আমাদের দাম্পত্য-জীবন অধিকাংশ স্থলে অপ্রীতি, নিরানন্দ ও কলহের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। সত্যই বলা হয়েছে, “Marriage is a blessing to a few, a cures to many and a great uncertainty to all.” অর্থাৎ বিবাহ দুই-একজনের জন্য আর্শীবাদ হতে পারে, কিন্তু অনেকের জন্য তা অভিশাপ এবং সকলের জন্যই তা এক বিষম অনিশ্চয়তা। সুখী দম্পতির সংখ্যা অধুনা এত কমে গেছে যে, বিবাহ সত্য-সত্যই আজকাল আর তেমন আগ্রহের বস্তু নয়। কারণ দেখা গেছে, গোড়াতে দম্পতির মধ্যে যতই গভীর ও তীব্র #ভালবাসা থাকুক না কেন, অতি অল্পদিন মধ্যেই সে ভালবাসা শুকিয়ে গেছে এবং দাম্পত্য-জীবন কলহ-বিবাদের আকারে পরিণত হয়েছে।

দায়ী কে?

দাম্পত্য-জীবনের এই নিরানন্দের জন্য দায়ী #পুরুষ, না #নারী? অতীতে সমস্ত অপরাধ নারীর ঘাড়ে চাপিয়ে পুরুষ নিজেকে বেকসুর খালাস দিয়েছে। নারী ছিল বেহেশত হইতে আদমের (আঃ) পতনের কারণ, পৃথিবীর সমস্ত যুদ্ধ-বিগ্রহ, অত্যাচার-অবিচার, পাপ ও দুর্নীতির হেত। সুতরাং নারীর জন্যই দাম্পত্য-জীবন সুখের হতে পারে নাই, এটাই ছিল সমস্ত জাতির সর্ব্ববাদী-সম্মত রায়।

দোষ পুরুষেরও আছে নারীরও আছে। অনেক দাম্পত্য-জীবন স্ত্রীর দোষে #সুখী হতে পারে নাই। আবার অনেক জীবন স্বামীর দোষেই সুখী হতে পারে নাই। কিন্তু এর জন্য স্ত্রী-বা স্বামী-বিশেষকে দোষ দিয়ে লাভ নাই। দোষ আমাদের শিক্ষার। কারণ দাম্পত্য-জীবনকে সুখী করিবার কোনও চেষ্টা আমরা করি নাই। সে শিক্ষা আমরা তরুণ-তরুণীকে দেই নাই। দাম্পত্য-সুখের মত জীবনের শ্রেষ্ঠ সুখ আমরা একেবারে বিনা-মূল্যে ক্রয় করতে চেয়েছি। সেজন্য আমরা এক কপর্দ্দকও ব্যয় করতে চাই নাই।

ত্যাগের আনন্দ, একথা দাম্পত্য-জীবনে যত প্রযোজ্য অন্য কোথাও বোধ হয় এত প্রযোজ্য নাই। যে ব্যক্তি অপরের প্রাণে আনন্দ দান করতে না পারে, সে আনন্দ উপভোগ করতে পারে না; যে অপরের মুখে #হাসি ফুটাতে জানে না, সে হাসিতেও পারে না। স্ত্রীকে যে সুখী করতে পারে না, সে নিজেই সুখী হইতে পারে না। জগতকে সে কী সুখদান করিবে?

কিন্তু আমরা স্বার্থপর, ত্যাগ অভ্যাস আমরা করি নাই। প্রভুত্ব নিয়ে প্রতিযোগিতা করেছি; স্ত্রীর উপর প্রাধান্য প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে নারীকে #দাসী করেছি। কিন্তু নারী দাসী নয়, সে জীবন-সঙ্গিনী। বহু ধর্ম-মতে হাওয়া (আঃ) কে সৃষ্টিকর্তা আদম (আঃ)-মের বক্ষ-পঞ্জরাস্থি হতে সৃষ্টি করেছেন।

এই সৃষ্টি-তত্ত্বের ব্যাখ্যা করতে গিয়ে জনৈক ইংরাজ-লেখক বলেছেন—

Women was made out of a rib from the side of adam. Not out of his head to top him, not out of his feet to be trampled on, but out of his side to be equal to him, under his arm to be protected, near his heart to be loved.

অর্থাৎ, নারীকে পুরুষের মস্তক হইতে সৃষ্টি করা হয় নাই,  সুতরাং নারী পুরুষের উপর প্রধান্য করিবে না; পুরুষের পদ হইতে তাহাকে সৃষ্টি করা হয় নাই, সুতরাং পুরুষ তাহাকে পদ-দলিত করিবে না; পুরুষের বক্ষ-পঞ্জরাস্থি হইতে সে সৃষ্টি হইয়াছে,  সুতরাং পুরুষের বাহুর আশ্রুয়ে তাহাকে রক্ষা করিবে এবং ভালবাসিবে।

দাম্পত্য-জীবন সাধনা-ক্ষেত্র, দাম্পত্য-সুখ সাধনার বস্তু। এই সুখ লাভ করিতে হলে যৌন-নিষ্ঠা, সহৃদয়তা, সহানুভূতি প্রভৃতি সদগুণ আয়ত্ত্ব করতে হবে। যৌন-উপযোগিতা লাভের জন্য কলারূপে আমাদেরকে প্রেম-চর্চা করতে হবে। মোট কথা, কি যৌন-জীবনে, কি বাহ্য-জীবনে আমাদেরকে পরস্পরের উপযোগী হতে হবে। এই অধ্যায়ে আমরা সেটাই আলোচনা করিব।

এরপর পড়ুন >> সতীত্ব

আপনি পড়ছেন >> যৌন বিজ্ঞান বই থেকে।

লেখাটি পড়ে আপনার কাছে ভালো লাগলে এটি শেয়ার করুন।

About Syed Rubel

Creative writer and editor of amar bangla post. Syed Rubel create this blog in 2014 and start social bangla bloggin.

Check Also

প্রেমের কথা

কলারূপে প্রেম- প্রেমের আবশ্যকতা ও প্রীতি-স্থাপনের উপায়

‘কলারূপে প্রেমের কথা শুনে অনেকে হয়তো চমকিয়ে উঠেছেন। যে #প্রেম নিছক মানসিক ব্যাপার মাত্র, তাঁকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE