Breaking News
Home / যৌন জীবন / অন্যান্য / কোট-শীপ! কোর্ট ম্যারেজ সম্পর্কে আলোচনা

কোট-শীপ! কোর্ট ম্যারেজ সম্পর্কে আলোচনা

দেশত্যাগের সম্পূর্ণ অধিকার থাকা সত্ত্বেও মানুষ সাধারণতঃ যে স্থানে জন্মগ্রহণ করে, সেই স্থানকেই জ্ঞান-প্রয়োগের দ্বারা বাসোপযোগী সুখুকর স্থানে পরিণত করে থাকে। ঠিক সেইরূপ যাহার সহিত মানুষের যৌন-সম্বন্ধ একবার প্রতিষ্ঠিত হয়ে যায়, ইচ্ছা করলে মানুষ জ্ঞান-প্রয়োগের দ্বারা সে সম্বন্ধকে মধুর করতে পারে। কোর্ট-শীপ প্রভৃতি যে সমস্ত প্রাগুদ্বাহ পরীক্ষা দ্বারা বিবাহ-জীবনকে স্থায়ী ও সুখকর করার প্রচেষ্টা হচ্ছে, ঐ সমস্ত পরীক্ষার কোনটাই যৌন-ভবিষ্যতের জন্য যথেষ্ট নয়। ইউরোপ প্রভৃতি যে  সমস্ত দেশে কোর্টশীপ-প্রথা বিদ্যমান আছে, সেই সমস্ত  স্থানের দাম্পত্য-জীবন এশিয়া-খন্ডের অন্ধ-বিবাহের দাম্পত্য-জীবন অপেক্ষা অধিক সুখের নয়। নিস্ফল বিবাহ এবং বিবাহ-বিচ্ছেদও ইউরোপ অপেক্ষা এশিয়ায় বেশি নয়। তাঁর অর্থ এই যে, সহস্র প্রকারের কোর্টশীপ বা অন্য কোনও পরীক্ষা দাম্পত্য-জীবনকে নিশ্চিতরূপে সুখী করতে পারে না। বর্তমান-প্রচলিত কোর্টশীপে ভাবী-দম্পতির মানসিক পরীক্ষাই হয়ে থাকে। শারীরিক পারস্পরিক উপযোগিতা পরীক্ষা করার নিয়ম নেই। বাক-দত্তদের যৌন-মিলন কদাচিৎ হয়ে থাকে। সাধারণতঃ বিবাহের পূর্বে যৌন-মিলন নিষিদ্ধ। যদি ধরেও নেওয়া যায় যে, কোর্ট-শীপে পারস্পরিক যৌন-উপযোগিতা পরীক্ষাও হতে পারে, তবু তাতে আমরা দম্পতির সমস্ত জীবনের সুখ সম্বন্ধে নিশ্চিন্ত হতে পারি না। কারণ দাম্পত্য সম্বন্ধ শারীরিক ও মানসিক উভয় প্রকারের সম্বন্ধ। কাজেই জীবনের কোনও-এক মুহূর্তের উপযোগিতাকে সারা জীবনের উপযোগিতা বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে না। বিশেষতঃ কোর্ট-শীপ-কালে তরুণ ও তরুণী পরস্পরের প্রিয় হবার জন্য নিজেদের দোষক্রটিকে এমনভাবে গোপন করে চলে যে, ফলে  কারোর পক্ষে পরস্পরকে চেনার ও বুঝার সুবিধা হয় না। এবিষয়ে How to  be happy though married নামক ইংরেজী পুস্তকে লেখা হয়েছে—

The whole endevour of both parties during the time of courtship is to hinder themselves from being known to each other—to disguise their natural temper in hypocritical imitations studied compliane and continued affectation and the cheat is often managed  on both sides with so much art and discovered afterwards with so much abruptness that each has reason to suspect that some transformation has happened on the wedding night.

সুতরাং কোর্ট-শীপ দাম্পত্য-উপযোগিতার সম্পূর্ণ নিরাপদ ও নির্ভর-যোগ্য রক্ষা-কবচ হতে পারে না।

বাজারে তৈরী জামা-কাপড় ও  জুতা পাওয়া যায়। অনেকগুলি পড়তে পড়তে একটা ক্রেতার উপযোগী হয়। আমাদের বিবাহ-প্রথা অনেকটা সেই ধরণের। আমরা কোর্ট-শীপ করি, বিবাহ করি, আশা এই যে এইরূপে তালাস করতে করতে উপযোগী সঙ্গী মিলিয়ে যেতে পারে। কিন্তু প্রশ্ন এই যে, আমাদের যৌন-জীবনকে এইরূপ গবেষণার বিষয় করা উচিত ও সম্ভব কিনা। জ্ঞান-বিজ্ঞানে মানুষ অনেক উন্নত হয়েছে। অনেক অনাবাদ জায়গায় মানুষ বাসোপযোগী করেছে, অনেক অখাদ্যকে মানুষ সুখাদ্য পরিণত করেছে। এক কথায়, মানুষ প্রকৃতির উপর অচিন্তনীয় প্রভাব বিস্তার করতে সমর্থ হয়েছে। শুধু কি যৌন-ব্যাপারেই মানুষের সাধনা নিস্ফল হবে? এখানেই কি মানুষ অন্ধের মত সুখের সন্ধানে হাতড়িয়ে বেড়াবে?

এরপর পড়ুন >> যৌন-বোধের প্রাধান্য

আপনি পড়ছেন >> যৌন বিজ্ঞান বই থেকে।

লেখাটি পড়ে আপনার কাছে ভালো লাগলে এটি শেয়ার করুন।

About Syed Rubel

Creative writer and editor of amar bangla post. Syed Rubel create this blog in 2014 and start social bangla bloggin.

Check Also

বীর্যের কীট

অনেক পুরুষ এমন রয়েছে, যাদেরকে দেখতে সুঠাম ও সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হওয়া সত্বেও তাদের কোনো সন্তান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE